fbpx

শরৎ-বেলা

শরৎ-বেলা - অরুণিমা ব্যানার্জী

এলো যে শরৎ বেলা।
কুঞ্জে কুঞ্জে ভ্রমরি গুঞ্জে
কমলশোভিত নবনিকুঞ্জে,
শিউলি শিশির খেলা।
ঢাকের বাদ্যি বাজলো বুঝি
স্নিগ্ধ আলোর মেলা।।
ছন্দে ছন্দে মধুরানন্দে
সুবাসিত বায়ু মালতী গন্ধে,
কাশবনে লাগে দোলা।
নীলিমায় নীল আকাশপটে,
পেঁজা তুলোর ভেলা।।
পত্রে পত্রে স্বর্ণগাত্রে
সুধাশিষ ভরা ধান্য পাত্রে,
সবুজের দ্বার খোলা।
চালচিত্র উঠলো সেজে
মাতৃবোধন পালা।।
কুসুমে কুসুমে উলসিত প্রেমে
শিশিরের রেখা শ্যাম তৃণদামে,
আগমনী মন ভোলা।
সিঁদুর রাঙা আলতা পায়ে,
 উমার বরণডালা।।
অস্ত্রে অস্ত্রে তেজপুঞ্জিতা
মহামায়া তুমি পুষ্পশোভিতা,
লালিমায় রাঙা ধুলা।
অভূষণপ্রিয়া নবীনবসনা
গাঁথিছে পদ্মমালা।।
রঙ্গে রঙ্গে  কনক অঙ্গে
শক্তিদায়িনী রূপবিভঙ্গে,
কুঞ্চিত কুন্তলা।
সন্ধিক্ষণে আলোকরাশি
ধুনুচি নাচের খেলা।।
বরষে বরষে তোমারই পরশে
লাস্য চিত্ত তৃপ্ত হরষে,
ধরিত্রী চঞ্চলা।
শিউলি পদ্মে ঢাকের ছন্দে
প্রতীক্ষায় উতলা।
আসিবে শরৎ বেলা।।

Bio :

অরুণিমা ব্যানার্জী – বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন একটি কলেজে ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষিকা।ছাত্রছাত্রীদের পড়ানোর পাশাপাশি লেখালেখি করাও একটা শখ।মহাভারত চর্চায় বিশেষ আগ্রহী। “গল্পমঞ্জরী” নামে একটি ছোটগল্প সমগ্র প্রকাশিত হয়েছে।তাছাড়া মহাভারতের বেশ কিছু তত্ত্বালোচনা,বড়গল্প ও বিভিন্ন ভ্রমণ কাহিনীও আছে।